ইউনিক হোটেলের আইপিও লটারির ড্র অনুষ্ঠিত

প্রাথমিক গণপ্রস্তাব প্রক্রিয়া শেষে আজ মঙ্গলবার ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্টস লিমিটেডের (ওয়েস্টিন হোটেল) আইপিও লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আবেদনকারীদের মধ্যে শেয়ার বরাদ্দের জন্য আজ সকাল সাড়ে ১০টায় ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হয়। লটারির ফলাফল ডিএসই, সিএসই, সংশ্লিষ্ট কোম্পানি এবং ইস্যু ব্যবস্থাপক প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে। তবে কোম্পানির সাধারণ বিনিয়োগকারী ও এনআরবি কোটায় আন্ডারসাবসক্রাইব হওয়ায় সকল আবেদনকারী শেয়ার পাবেন। শুধুমাত্র মিউচ্যুয়াল ফান্ড ওভারসাবসক্রাইব হওয়ায় লটারী হয়েছে।

আইপিওতে শেয়ার বরাদ্দের জন্য স্থানীয় অধিবাসীদের কাছ থেকে গত ১৫ এপ্রিল থেকে ইউনিক হোটেলের আবেদন গ্রহণ শুরু হয়ে চলে ১৯ এপ্রিল পর্যন্ত এবং প্রবাসীদের জন্য এ সুযোগ ছিল ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত। প্রতিটি শেয়ারে ১০ টাকা ফেস ভ্যালুর ৬৫ টাকা প্রিমিয়াম নেয়া হয়েছে। ফলে প্রতি লটের জন্য বিনিয়োগকারীদের দিতে হয়েছে ৭ হাজার ৫০০ টাকা। কোম্পানিটি পুঁজিবাজারে ২ কোটি ৬০ লাখ শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে মোট ১৯৫ কোটি টাকা সংগ্রহ করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করে।

জানা যায়, ইউনিক হোটেলের আইপিওতে স্থানীয় কোটায় বরাদ্দের চেয়ে কম আবেদন (আন্ডার সাবস্ক্রাইব) জমা পড়ে। তবে মিউচ্যুয়াল ফান্ড কোটায় বরাদ্দের চেয়ে দ্বিগুণ আবেদন জমা পড়ে। এ কোম্পানির আইপিও আবেদনে মোট ২ লাখ ৯ হাজার ৩৫০টি আবেদন জমা পড়ে।
পরিসংখ্যান অনুযায়ী মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও সাধারণ বিনিয়োগকারী মিলিয়ে মোট আবেদন জমা পড়ে ২ লাখ ৫ হাজার ৩০৭টি। আর প্রবাসী বিনিয়োগকারীরা মোট ৪ হাজার ৪৩টি আবেদন জমা দিয়েছেন।
আইপিও পূর্ব এ কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ছিল ২৩০ কোটি টাকা এবং আইপিও পরবর্তী মূলধন হবে ২৫৬ কোটি টাকা। সর্বশেষ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১১ পর্যন্ত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী এ কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে (ইপিএস) ৪.৩০ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে (এনএভি) ১০০.৩৮ টাকা। এর ইস্যু ব্যবস্থাপক হিসেবে কাজ করছে ব্রাক ইপিএল ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড এবং অডিটে রয়েছে এস এফ আহমেদ অ্যান্ড কোম্পানি।

সূত্র: শেয়ার নিউজ টুয়েন্টিফোর, ১৫ মে, ২০১২