Tag Archives: GBB Power

১৩ জুন থেকে জিবিবি পাওয়ারের শেয়ার লেনদেন শুরু হবে

বিদ্যুৎ ও জ্বালানী খাতের জিবিবি পাওয়ার লিমিটেড প্রথম প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

৩১ মার্চ সমাপ্ত প্রথম (জানু-মার্চ’১২) প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী এ প্রতিষ্ঠানের কর পরবর্তী মুনাফা হয়েছে ৭৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা, শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.২৫ টাকা। যা গত বছরের একই সময়ে ছিলো যথাক্রমে ১ কোটি ৪৮ লাখ ৮০ হাজার টাকা এবং ০.৪৯ টাকা।

উল্লেখ্য আগামীকাল ১৩ জুন বুধবার থেকে জিবিবি পাওয়রে শেয়ার লেনদেন শুরু হবে।

সূত্র: শেয়ারনিউজ২৪.কম, জুন ১২, ২০১২

জিবিবি পাওয়ারের আইপিওতে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৩ শতাংশ কম আবেদন

বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান জিবিবি পাওয়ারের প্রাথমিক গণ প্রস্তাবে (আইপিও) লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৩ শতাংশ কম আবেদন (আন্ডার সাবস্ক্রাইব) জমা পড়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে বাজারের প্রতি বিনিয়োগকারীদের আস্থার অভাবের কারণেই লক্ষ্যমাত্রার চেয়েও কম আবেদন জমা পড়েছে বলে বাজার সংশ্লিষ্টরা মনে করেন।

প্রতিষ্ঠানটির ৮২ কোটি টাকার শেয়ারের বিপরীতে ৭২ কোটি টাকার আবেদন জমা পড়েছে যা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে ১৩ শতাংশ কম। ইস্যু ব্যবস্থাপকের পরিসংখ্যানে অনুযায়ী এ তথ্য জানা গেছে।

পুঁজিবাজারে ২ কোটি ৫ লাখ শেয়ার ছেড়ে বা ১ লাখ ২ হাজার ৫০০ লট ছেড়ে ৮২ কোটি টাকা সংগ্রহের কথা ছিলো। কোম্পানির ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের প্রতিটি শেয়ারে ৩০ টাকা প্রিমিয়ামসহ মোট ৪০ টাকা মূল্য নির্ধারণ করা হয়।

জানা যায়, গত ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে স্থানীয় বিনিয়োগকারীদের কাছে থেকে আবেদন গ্রহণ শুরু হয় এবং শেষ হয় ১ মার্চ। আর প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের এ আবেদন ১০ মার্চ পর্যন্ত জমার সুযোগ ছিলো।

সূত্র: শেয়ার নিউজ ২৪, ১৬ মার্চ, ২০১২

জিবিবি পাওয়ারের আইপিও জটিলতা কেটেছে

এসইসির স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার ॥ ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে আবেদনপত্র জমা
জিবিবি পাওয়ার লিমিটেডের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) স্থগিতাদেশ তুলে নিয়েছে সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (এসইসি)। বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) থেকে অনাপত্তি পত্র পাওয়ায় গত সপ্তাহে অনুষ্ঠিত ৪১৮তম কমিশন সভায় স্থগিতাদেশ প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত অনুমোদন করা হয়। একইসঙ্গে আগামী ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে আইপিও আবেদন গ্রহণের জন্য কোম্পানিকে অনুমতি দিয়েছে এসইসি।
পুঁজিবাজারে ২ কোটি ৫ লাখ শেয়ার ছেড়ে মোট ৮২ কোটি টাকা সংগ্রহের জন্য বেসরকারী খাতের বিদ্যুত উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান জিবিবি পাওয়ারকে গত ১৮ অক্টোবর আইপিও অনুমোদন দেয় এসইসি। আইপিওর মাধ্যমে বিক্রির জন্য কোম্পানির ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের প্রতিটি শেয়ারে ৩০ টাকা প্রিমিয়ামসহ মোট ৪০ টাকা মূল্য নির্ধারণ করা হয়। কিন্তু আইনগত বাধ্যবাধকতা থাকলেও কোম্পানির আইপিও অনুমোদনের আগে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনকে (বিইআরসি) বিষয়টি অবহিত করেনি এসইসি। আইন অনুযায়ী বিইআরসির কাছ থেকে লাইসেন্স নিয়ে কার্যক্রম পরিচালনাকারী কোম্পানির কাঠামোগত পরিবর্তনের আগে কমিশনের অনাপত্তি গ্রহণ করতে হয়। কিন্তু আইপিওতে আসার জন্য এ ধরনের কোন অনুমোদন নেয়নি কোম্পানিটি। এ বিষয়ে গত নবেম্বরে এসইসিকে চিঠি দেয় বিইআরসি। এতে বলা হয়েছে, পুঁজিবাজারে শেয়ার ছাড়ার আগে বিদ্যুত জ্বালানি খাতে ব্যবসা করছে এমন সকল কোম্পানিকে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনের (বিইআরসি) অনুমোদন নিতে হবে। আইন অনুযায়ী বিইআরসির লাইসেন্সে কাজ করছেন এমন কোম্পানির যে কোন ধরনের কাঠামোগত পরিবর্তনের জন্য কমিশনের অনুমোদন প্রয়োজন।
চিঠিতে জানানো হয়, বিদ্যুত কেন্দ্রের মূলধন সংগ্রহের জন্য এখন অনেক কোম্পানি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হবে। এতে এসব কোম্পানির সম্পদের হিসাব এবং কাঠামোগত পরিবর্তন আসবে। এ ধরনের পরিবর্তনের ক্ষেত্রে আইন অনুযায়ী অবশ্যই কমিশনের পূর্বানুমতি প্রয়োজন। শেয়ার ছেড়ে অর্থ সংগ্রহের আগেও কমিশনের অনুমোদন নিতে হবে। জিবিবি পাওয়ারের ক্ষেত্রে এ ধরনের অনুমতি নেয়া হয়নি।
জ্বালানি খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছ থেকে এ ধরনের চিঠি পাওয়ার পর জিবিবি পাওয়ারের আইপিও প্রক্রিয়া স্থগিত করে দেয় এসইসি। এর ফলে কোম্পানির আইপিও আবেদনপত্র জমা নেয়ার প্রক্রিয়াও স্থগিত হয়ে যায়।
সম্প্রতি জিবিবি পাওয়ারের আইপিওতে আসার বিষয়ে অনাপত্তিপত্র দিয়েছে বিইআরসি। এর প্রেক্ষিতে গত সপ্তাহে অনুষ্ঠিত এসইসির ৪১৮তম কমিশন সভায় কোম্পানির আইপিও প্রক্রিয়া পুনরায় চালুর অনুমতি প্রদান করা হয়। কোম্পানি আগামী ২৬ ফেব্রæয়ারি থেকে ১ মার্চ পর্যন্ত বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে আবেদনপত্র জমা নেবে।

সূত্র: দৈনিক জনকণ্ঠ, ৭ ফেব্রুয়ারী ২০১২

GBB Power’s IPO subscription put off

SEC asks the firm to sort out license problem
The Securities and Exchange Commission (SEC) Thursday postponed the IPO (initial public offering) subscription of GBB Power as the company has not yet fixed its license problem, officials said.

Officials said the SEC made the decision after the company failed to submit key papers to the securities regulator concerning its power production license from the government.

The GBB has a RPP (Rental Power Plant) license from the energy regulator and also struck a deal with the state-owned Power Development Board (PDB) to supply electricity to national grid, sources said.

In October the company sought to raise Tk 820 million under the fixed price method from the stock market by offloading 20.5 million shares with face-value at Tk10 each plus Tk30 premium.

The SEC gave consent to the IPO on October 18 on conditions that the firm would submit necessary documents before the start of its subscription from December 18, an official said.

“Unfortunately, GBB has failed to show the IPP license document to us. The SEC had no choice but to postpone the IPO subscription until further notice,” he added.

Source said a company can generate electricity for a certain span of time, which may be three years, with a RPP license.

But officials said the regulator can’t allow a company to go public without an IPP license, as the firm will face problem to produce power after the expiry of the RPP license.

Experts have raised concern over the move by some RPPs to raise fund from the capital market, as these firms are likely to wind up operations once their license period ends.

When asked, a top SEC official said the regulator has asked the GBB Power to furnish full details of its contract with the PDB and the energy regulator.

“We will not allow the company to start subscription before we see all the papers. We will also talk to the government regarding the issue,” he said.

When asked an official of the IDLC Finance, the issue manager of GBB Power, said the company’s license is a “pending” issue.

“The company is likely to get the IPP license very soon. We don’t see any problem here,” the official said.

Meanwhile, the company moved to the High Court seeking an order so as to get an IPP license from the Bangladesh Energy Regulatory Commission (BERC).

The High Court delivered a verdict last month in favour of GBB Power. But the BERC appealed against the ruling in the Supreme Court, saying the HC order needs further clarification.

Source: The Financial Express, December 16, 2011

জিবিবি পাওয়ারের আইপিও গ্রহণের তারিখ বাতিল

বাংলাদেশের প্রথম ভাড়াভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র জিবিবি পাওয়ার লিমিটেডের প্রাথমিক শেয়ার বরাদ্দের আবেদন (আইপিও) গ্রহণের তারিখ বাতিল করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে দেওয়া এক ঘোষণায় প্রতিষ্ঠানটি বলে, “বিশেষ পরিস্থিতির কারণে আইপিও গ্রহণের তারিখ বাতিল করা হলো। নতুন তারিখ চূড়ান্ত হওয়া মাত্র সেটি জানানো হবে।”

প্রতিষ্ঠানটির আইপিও গ্রহণের সর্বশেষ নির্ধারিত তারিখ ছিল ১৮ ডিসেম্বর থেকে ২২ ডিসেম্বর। এর আগে ৪ ডিসেম্বর থেকে ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত প্রতিষ্ঠানটির আইপিও গ্রহণের তারিখ নির্ধারিত ছিল।

প্রতিষ্ঠানটির প্রতিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের শেয়ারের প্রিমিয়াম ৩০ টাকাসহ মোট মূল্য ৪০ টাকা। এর ইস্যু ম্যানেজার হিসাবে রয়েছে আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

সূত্র: বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম, ডিসেম্বর ১৫, ২০১১

জিবিবি পাওয়ারের আইপিও আবেদনের তারিখ পরিবর্তন

প্রাথমিক শেয়ার বরাদ্দের জন্য সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে আবেদনপত্র গ্রহণের তারিখ পরিবর্তন করেছে জিবিবি পাওয়ার লিমিটেড। আগ্রহী বিনিয়োগকারীরা আগামী ১৮ ডিসেম্বর থেকে ২২ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদনপত্র জমা দিতে পারবেন। তবে প্রবাসী বাংলাদেশী (এনআরবি) বিনিয়োগকারীদের জন্য ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত কোম্পানির প্রধান কার্যালয়ে আবেদনপত্র পৌঁছানোর সুযোগ থাকবে। এর আগে কোম্পানির পৰ থেকে ৪ থেকে ৮ ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদনপত্র গ্রহণের ঘোষণা দেয়া হয়েছিল।
পুঁজিবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহের জন্য বেসরকারী খাতের বিদু্যত উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান জিবিবি পাওয়ার গত ১৮ অক্টোবর এসইসির কাছ থেকে আইপিও অনুমোদন লাভ করে। পুঁজিবাজারে ২ কোটি ৫ লাখ শেয়ার ছেড়ে কোম্পানি মোট ৮২ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। আইপিওর মাধ্যমে বিক্রির জন্য কোম্পানির ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের প্রতিটি শেয়ারে ৩০ টাকা প্রিমিয়ামসহ মোট ৪০ টাকা মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। ২০০টি শেয়ার নিয়ে নির্ধারিত প্রতি লটের জন্য বিনিয়োগকারীদের মোট ৮ হাজার টাকা জমা দিতে হবে। শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্তির জন্য আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেড জিবিবি পাওয়ারের ইসু্য ব্যবস্থাপকের দায়িত্ব পালন করছে।
কোম্পানির অনুমোদিত মূলধন ১০০ কোটি টাকা এবং বর্তমানে পরিশোধিত মূলধনের পরিমাণ ৩০ কোটি ৫০ লাখ টাকা। আইপিও প্রক্রিয়া শেষ হলে পরিশোধিত মূলধন ৫১ কোটি টাকায় দাঁড়াবে। সর্বশেষ আর্থিক বিবরণী অনুযায়ী, জিবিবি পাওয়ারের বর্তমান সম্পদের মূল্যমান ১৩৪ কোটি ২৪ লাখ ২৪৫ টাকা। ২০১০-১১ অর্থবছরে কোম্পানির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ৮৩ পয়সা। এর আগের বছর এই কোম্পানির ইপিএস ১ টাকা ৫৫ পয়সা ছিল।
দেশে বেসরকারী খাতে প্রথম রেন্টাল পাওয়ার পস্ন্যান্ট নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠান জিবিবি পাওয়ার একটি প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি হিসেবে ২০০৬ সালের অক্টোবরে যাত্রা শুরম্ন করে। ২০০৮ সালের ১৭ জুন কোম্পানির বাণিজ্যিক উৎপাদন শুরম্ন হয়। ওই বছরের ৮ এপ্রিল কোম্পানিকে পাবলিক লিমিটেডে রূপানত্মর করা হয়। কোম্পানি বিদু্যত কেন্দ্র স্থাপন করে পিডিবি ও পলস্নী বিদু্যতায়ন বোর্ডকে বিদু্যত সরবরাহ কার্যক্রম পরিচালনা করে।
কোম্পানি বর্তমানে বগুড়ায় ২৩.২৬ মেগাওয়াট উৎপাদন ৰমতাসম্পন্ন বিদু্যত কেন্দ্র পরিচালনা করছে। এই কেন্দ্র থেকে প্রতিদিন জাতীয় গ্রিডে কমপৰে ২১.০৩ মেগাওয়াট বিদু্যত সরবরাহ করা হয়। নতুন বিদু্যত কেন্দ্র স্থাপনের মাধ্যমে কোম্পানির বাণিজ্যিক কর্মকা- সম্প্রসারণের লৰ্যে পুঁজিবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহ করা হচ্ছে।

সূত্র: দৈনিক জনকণ্ঠ, ২ ডিসেম্বর, ২০১১

GBB Power reschedules IPO subscription period

The GBB Power Limited has decided to reschedule its initial public offering (IPO) period due to unavoidable reason, an official of the company said.

He also said the Securities and Exchange Commission (SEC) has already given consent in this regard.

As per the new schedule, IPO subscription will start from December 18 and will close on December 22 while the subscription will continue for the NRB investors until December 31. The company will float 20.49 millions ordinary shares of Tk 10 each at an offer price of Tk 40, including Tk 30 as premium.

GBB Power Limited plans to utilise the proceeds of the IPO to meet long term loan refund, IPO expenses and working capital requirements.

The company has reported Net Asset Value per Share of Tk 22.52 as on December 31, 2010. The company has also reported EPS of Tk 2.83 for the year.

GBB Power Limited is engaged in generating electricity and supplying it to BPDB through Power Grid Company of Bangladesh’s 33 KV regional transmission grid line in Bogra.

Source: Daily Sun, December 2, 2011

IPO subscription of GBB Power Limited from December 4

IPO subscription of GBB Power Limited will be started from 4 December, 2011 and will be closed on 11 December, 2011. For NRB applicants, it will remain open till 20 December, 2011.

Market lot for the IPO is 200. Face value is 10/= and offer price is 40/= including a premium of 30/=

Forms are available for download at http://new.bdipo.com/companies .

You can also generate automated IPO form by logging with your bdipo account.

Source: bdipo.com

জিবিবি পাওয়ারের আইপিও আবেদন ৪ঠা ডিসেম্বর

বেসরকারি খাতের বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান জিবিবি পাওয়ার লিমিটেডের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) আবেদন নেয়া শুরু হবে আগামী ৪ঠা ডিসেম্বর। স্থানীয় বাংলাদেশীরা (আরবি) ১১ই ডিসেম্বর পর্যন্ত আবেদন করতে পারবেন। অনাবাসী বাংলাদেশীরা (এনআরবি) আবেদন করতে পারবেন ২০শে ডিসেম্বর পর্যন্ত। সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (এসইসি) গত ১৮ই অক্টোবর শেয়ার বাজার থেকে অর্থ সংগ্রহের জন্য জিবিবি পাওয়ারকে অনুমোদন দেয়। শেয়ার বাজারে ২ কোটি ৫ লাখ শেয়ার ছেড়ে জিবিবি পাওয়ার মোট ৮২ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। আইপিও’র মাধ্যমে বিক্রির জন্য কোম্পানির ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের প্রতিটি শেয়ারে ৩০ টাকা প্রিমিয়ামসহ মোট ৪০ টাকা মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে। শেয়ার বাজারে তালিকাভুক্তির জন্য আইডিএলসি ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড জিবিবি পাওয়ারের ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্ব পালন করছে। জানা গেছে, কোম্পানিটির অনুমোদিত মূলধন ১০০ কোটি টাকা এবং বর্তমানে পরিশোধিত মূলধন ৩০ কোটি ৫০ লাখ টাকা। আইপিও প্রক্রিয়া শেষ হলে পরিশোধিত মূলধন ৫১ কোটি টাকায় দাঁড়াবে। সর্বশেষ আর্থিক বিবরণী অনুযায়ী জিবিবি পাওয়ারের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ২ টাকা ৮৩ পয়সা। শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) ২২ টাকা ৫২ পয়সা। ৩১শে ডিসেম্বর ২০১০-এর নিরীক্ষিত হিসাব অনুযায়ী এ তথ্য প্রকাশ করে কোম্পানিটি। জানা গেছে, কোম্পানিটি মূলত বিদ্যুৎ উৎপাদন করে থাকে। পরে পাওয়ার গ্রিডের মাধ্যমে বাংলাদেশ পাওয়ার ডেভেলপমেন্ট বোর্ডের (বিপিডিবি) কাছে বিক্রি করে।

সূত্র: মানবজমিন, ২৯ নভেম্বর, ২০১১