রোববার থেকে ইফাদের অ্যালোটমেন্ট বিতরণ শুরু

ইফাদ অটোস লিমিটেডের অ্যালোটমেন্ট লেটার বা বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ শুরু হবে আগামীকাল ২৮ ডিসেম্বর রোববার। কোম্পানি উপ-ব্যবস্থাপক নাফিজুর ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
কোম্পানি সূত্রে জানা গেছে, রোববার থেকে শুরু করে পহেলা জানুয়ারি বৃহস্পতিবার পর্যন্ত রিফান্ড বিতরণের সময়সীমা নির্ধারণ করা হয়েছে। প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৪ টা পর্যন্ত ব্যাংক রশিদের বিনিময়ে বরাদ্দপত্র এবং রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে।
জানা গেছে, পল্টন কমিউনিটি সেন্টার ও ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থায় বরাদ্দপত্র এবং রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে ।
রোববার ব্যাংক এশিয়ার নিচে উল্লিখিত শাখাসমূহের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে বিতরণ করা হবে। শাখাগুলো হচ্ছে-বসুন্ধরা কর্পোরেট, ধানমন্ডি, গুলশান, এমসিবি বনানী, এমসিবি দিলকুশা, মিরপুর, মিডফোর্ড, মগবাজার, মহাখালি, নর্থসাউথ রোড, পল্টন এবং প্রিন্সিপাল অফিস শাখা। ওইদিন ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থায় বিতরণ করা হবে ব্র্যাক ব্যাংক অনুমোদিত সকল শাখাসমূহের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট।
সোমবার ব্যাংক এশিয়া অনুমোদিত উপরে উল্লিখিত শাখা ছাড়া অনুমোদিত সকল শাখার বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে বিতরণ করা হবে। ওইদিন পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে ঢাকা ব্যাংকের অনুমোদিত সকল শাখার রিফান্ড বিতরণ করা হবে।
একইদিনে ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থায় ডিএসই, সিএসই অনুমোদিত স্টক ব্রোকার্স, মার্চেন্ট ব্যাংকার্স ও ইনভেস্টমেন্ট কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (আইসিবি) অনুমোদিত সকল শাখাসমূহের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে।
মঙ্গলবার পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে মার্কেন্টাল ব্যাংক ও প্রিমিয়ার ব্যাংক অনুমোদিত সকল শাখার বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে। একই দিনে ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থায় সাউথইস্ট ব্যাংকের কর্পোরেট ও প্রিন্সিপাল শাখা ছাড়া অনুমোদিত শাখাসমূহের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে।
বুধবার পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে ন্যাশনাল ব্যাংক অনুমোদিত শাখাসমূহের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে। ওইদিন ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থায় সাউথইস্ট ব্যাংকের শুধুমাত্র কর্পোরেট ও প্রিন্সিপাল শাখার এবং দি সিটি ব্যাংকের অনুমোদিত শাখার রিফান্ড বিতরণ করা হবে।
বৃহস্পতিবার পল্টন কমিউনিটি সেন্টারে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক অনুমোদিত শাখাসমূহের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড ওয়ারেন্ট বিতরণ করা হবে। ওইদিন ঢাকা জেলা ক্রীড়া সংস্থায় ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক অনুমোদিত সকল শাখার রিফান্ড বিতরণ করা হবে। একই জায়গায় (মিউচ্যুয়াল ফান্ড এবং আই/এ হিসাবসমূহ) এবং এনআরবি ফান্ডের বরাদ্দপত্র ও রিফান্ড বিতরণ করা হবে।
কিন্তু যারা নির্ধারিত তারিখের মধ্যে রিফান্ড ওয়ারেন্ট সংগ্রহ করতে ব্যর্থ হবে, তাদের নিজ ঠিকানায় কুরিয়ারের মাধ্যমে পাঠানো হবে।

তবে যেসব বিনিয়োগকারী এবি ব্যাংক লিমিটেড, আল-আরফা ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, আল-ফালাহ ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড, ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড, কমার্শিয়াল ব্যাংক অব সিলন পিএলসি, ঢাকা ব্যাংক লিমিটেড, ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেড, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড, এক্সিম ব্যাংক লিমিটেড, ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, যমুনা ব্যাংক লিমিটেড, মার্কেন্টাইল ব্যাংক লিমিটেড, মিউচুয়্যাল ট্রাস্ট ব্যাংক লিমিটেড, ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেড, ন্যাশনাল ব্যাংক অব পাকিস্তান, এনসিসি ব্যাংক লিমিটেড, ওয়ান ব্যাংক লিমিটেড, প্রিমিয়ার ব্যাংক লিমিটেড, প্রাইম ব্যাংক লিমিটেড, শাহাজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, সোশ্যাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড, সাউথইস্ট ব্যাংক লিমিটেড, স্ট্যান্ডার্ড চার্টাড ব্যাংক, স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়া, দি সিটি ব্যাংক ট্রাস্ট ব্যাংক এবং ওরি ব্যাংকে যাদের অ্যাকাউন্ট আছে তাদের নিজ নিজ অ্যাকাউন্টে রিফান্ড জমা হয়ে যাবে। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীরা এ সুযোগ পাবে না।
এছাড়াও কোনো বিনিয়োগকারীর অ্যাকাউন্টে টাকা জমা না হলে আগামী ১৫ থেকে ২০ জানুয়ারি মধ্যে নিচের ঠিকানায় যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। শুক্রবার ও সরকারী ছুটির দিন ছাড়া সকাল সাড়ে ৯টা থেকে ৪টা পর্যন্ত কেন্দ্রীয় কচি কাঁচার মেলা, সেগুন বাগিচায় যোগাযোগ করতে হবে।
শেয়ারনিউজ২৪/এজেড/গমেজ/১৬.৩১ঘ.