Category Archives: IPO Subscription

ইন্দো-বাংলার আইপিও লটারির ড্র তারিখ নির্ধারণ

নিজস্ব প্রতিবেদক: সম্প্রতি প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) লটারির ড্র তারিখ নির্ধারণ করেছে ওষুধ ও রসায়ন খাতের ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড। আগামী ১১ সেপ্টেম্বর কোম্পানির আইপিও লটারি অনুষ্ঠিত হবে। কোম্পানির সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, আগামী ১১ সেপ্টেম্বর সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ারিং ইন্সটিটিউট, কাকরাইল, ঢাকা এ কোম্পানির আইপিও লটারি অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে কোম্পানির আইপিও আবেদন গত ৯ আগষ্ট থে‌কে শুরু হয়। যা চলে ১৬ আগষ্ট পর্যন্ত।

গত বছরের ৩ অক্টোবর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ৬১৩ তম কমিশন সভায় কোম্পানিটিকে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন দেওয়া হয়।

কোম্পানিটি আইপিওর মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে এ অর্থ উত্তোলন করবে।

উত্তোলিত টাকায় অবকাঠামো নির্মাণ, মেশিনারিজ ক্রয় এবং আইপিও সংক্রান্ত খাতে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৬ হিসাব বছর শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ২.৬২ টাকা। শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১১.৬৩ টাকা।

উল্লেখ্য, কোম্পানির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছে এএফসি ক্যাপিট্যাল, ইবিএল ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড এবং সিএপিএম অ্যাডভাইসরি লি:।

শেয়ারনিউজ; ০২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ইন্দো-বাংলার আইপিওতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের রেকর্ড আবেদন

নিজস্ব প্রতিবেদক: শেয়ারবাজার থেকে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পাওয়া ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালসের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) প্রাতিষ্ঠানিক বা যোগ্য বিনিয়োগকারীদের রেকর্ড পরিমাণ আবেদন জমা পড়েছে। যা এর আগে অন্য কোন কোম্পানির আইপিওতে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের এতো আবেদন জমা পড়ে নাই।

ইন্দো-বাংলার আইপিওতে আবেদন সংগ্রহ করা হয় ০৯ আগস্ট থেকে ১৬ আগস্ট পর্যন্ত। ওইসময় কোম্পানিটির শেয়ার কেনার জন্য আইপিওতে ৭৫৭টি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদন করা হয়েছে। যা অন্য যেকোন কোম্পানির চেয়ে বেশি। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা এমএল ডাইংয়ে ৭৪৩টি ও তৃতীয় অবস্থানে থাকা সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালসে ৭৩৫টি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান থেকে আবেদন করা হয়েছে।

কোম্পানিটির জন্য শেয়ারবাজারে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করা হবে। এরমধ্যে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের জন্য বরাদ্দ ৫০ শতাংশ বা ১০ কোটি টাকা। এই ১০ কোটি টাকার বিপরীতে ৭৫৭টি প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান থেকে ১৪৯ কোটি ২৮ লাখ ২৫ হাজার টাকার আবেদন করা হয়েছে। এক্ষেত্রে চাহিদার ১৪.৯৩ গুণ বা ১৪৯৩ শতাংশ আবেদন জমা পড়েছে।

উত্তোলনযোগ্য অর্থ দিয়ে কোম্পানিটির কারখানা, প্রশাসনিক ভবন, গুদাম ও গ্যারেজ ভবন নির্মাণ, মেশিনারিজ ক্রয় এবং আইপিওতে ব্যবহার করা হবে।

২০১৬-১৭ অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ১.২১ টাকা। আর ২০১৭ সালের ৩০ জুন কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভিপিএস) দাড়িয়েছে ১২.৮৪ টাকায়।

আইপিওতে কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড, ইবিএল ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড এবং সিএপিএম অ্যাডভাইজরি লিমিটেড।

এর আগে গত ৩ অক্টোবর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৬১৩তম কমিশন সভায় কোম্পানিটির আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়।

শেয়ারনিউজ; ২৭ আগস্ট ২০১৮

কাট্টালি টেক্সটাইলের আইপিও আবেদন ২৮ আগস্ট শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক: প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া কাটতলী টেক্সটাইলের আইপিও চাঁদা গ্রহণ আগামী ২৮ আগস্ট শুরু হবে। যা চলবে ১৩ সেপ্টম্বর পর্যন্ত। কোম্পানি সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

কোম্পানিটি গত ৩১ জুলাই নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি থেকে আইপিও সম্মতিপত্র গ্রহণ করে। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

গত ২৬ জুন কোম্পানিটিকে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ৩ কোটি ৪০ লাখ সাধারণ শেয়ার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) এর মাধ্যমে ইস্যু প্রস্তাব অনুমোদন করে কমিশন।

আইপিও এর মাধ্যমে কোম্পানিটি ৩৪ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। উত্তোলিত টাকা দিয়ে কোম্পানিটি কারখানার ভবন নির্মাণ, কর্মচারীদের ডরমেটরি ভবন নির্মাণ, নতুন যন্ত্রপাতি ক্রয়, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ এবং গণ প্রস্তাবের খরচ খাতে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির পুনর্মূল্যায়ন ছাড়া শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ২০ টাকা ৪৮ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৯৪ পয়সা।

উল্লেখ, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এনআরবি ইকুইটি ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ; ১৮ আগস্ট ২০১৮

ইন্দো-বাংলা ফার্মার আইপিও আবেদনের শেষ দিন ১৬ই আগস্ট-২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পাওয়া ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের আইপিও আবেদন আজ ১৬ আগস্ট শেষ হবে। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে গত ৯ আগস্ট কোম্পানিটির আইপিও আবেদন শুরু হয়েছিল।

গত ১৬ জুলাই রাতে ইন্দোবাংলার আইপিওর সম্মতিপত্র পায় কোম্পানিটি।

এর আগে উচ্চ আদালত কোম্পানিটির আইপিও স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার করেছে। ন্যাশনাল ব্যাংকের সঙ্গে কোম্পানির ঋণ সংক্রান্ত সমস্যা সমাধানের পর এই সম্মতিপত্র পায় কোম্পানিটি।

কোম্পানিটির ৪ জন পরিচালক ঋণ খেলাপি হওয়ায় ন্যাশনাল ব্যাংকের পক্ষ থেকে বরিশালের অর্থ ঋণ আদালতে মামলা দায়ের করা হয়। এতে কোম্পানির আইপিও আবেদনে ৬ মাসের জন্য স্থগিতাদেশ দেয়া হয়েছিল।

এর আগে গত বছরের ৩ অক্টোবর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ৬১৩ তম কমিশন সভায় কোম্পানিটিকে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন দেওয়া হয়।

ইন্দো-বাংলা ফার্মা আইপিওর মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে এ অর্থ উত্তোলন করবে।

উত্তোলিত টাকায় অবকাঠামো নির্মাণ, মেশিনারিজ ক্রয় এবং আইপিও সংক্রান্ত খাতে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৬ হিসাব বছর শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ২.৬২ টাকা। শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১১.৬৩ টাকা।

উল্লেখ্য, কোম্পানির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছে এএফসি ক্যাপিট্যাল, ইবিএল ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড এবং সিএপিএম অ্যাডভাইসরি লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ; ১৬ আগস্ট ২০১৮

কাট্টালি টেক্সটাইল লিমিটেড এর আইপিও শুরু হয়েছে।

কাট্টালি টেক্সটাইল লিমিটেড এর আইপিও শুরু হয়েছে। আবেদন করা যাবে ২৮ অগাস্ট ২০১৮ থেকে আর শেষ হবে ১৩ই সেপ্টেম্বার-২০১৮ তে।

বিস্তারিত জানতে www.bdipo.com

ইন্দো-বাংলা ফার্মার আইপিও আবেদন শুরু আগামীকাল

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পাওয়া ইন্দো-বাংলা ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের আইপিও আবেদন আগামীকাল ৯ আগষ্ট থে‌কে শুরু হবে। বিনিয়োগকারীরা ১৬ আগষ্ট পর্যন্ত বি‌নি‌য়োগকারীরা এ কোম্পা‌নির আই‌পিও আ‌বেদন কর‌তে পার‌বেন।

গত বছরের ৩ অক্টোবর বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ৬১৩ তম কমিশন সভায় কোম্পানিটিকে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন দেওয়া হয়।

ইন্দো-বাংলা ফার্মা আইপিওর মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে বাজার থেকে এ অর্থ উত্তোলন করবে।

উত্তোলিত টাকায় অবকাঠামো নির্মাণ, মেশিনারিজ ক্রয় এবং আইপিও সংক্রান্ত খাতে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৬ হিসাব বছর শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ২.৬২ টাকা। শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১১.৬৩ টাকা।

উল্লেখ্য, কোম্পানির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে আছে এএফসি ক্যাপিট্যাল, ইবিএল ইনভেস্টমেন্টস লিমিটেড এবং সিএপিএম অ্যাডভাইসরি লি:।

শেয়ারনিউজ; ০৮ আগস্ট ২০১৮

সিলভা ফার্মার আইপিও আবেদন শুরু রোববার

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহে আবেদনের তারিখ নির্ধারণ করেছে সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালস। আগামী রোববার (২৯ জুলাই) কোম্পানিটির আইপিও আবেদন শুরু হবে। চলবে ৫ আগস্ট পর্যন্ত। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে ১১ জুন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) কোম্পানিটির আইপিও অনুমোদন দেয়।

প্রসপেক্টাস সূত্রে জানা যায়, সিলভা ফার্মাসিউটিক্যালসকে পুঁজিবাজার থেকে ৩০ কোটি টাকা উত্তোলনের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। কোম্পানিটি অভিহিত মূল্য ১০ টাকা করে ৩ কোটি সাধারণ শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে এই টাকা সংগ্রহ করবে।

উত্তোলিত টাকায় কোম্পানিটি যন্ত্রপাতি ও কলকব্জা ক্রয়, কারখানার ভবন নির্মাণ, ঋণ পরিশোধ এবং আইপিওতে ব্যবহার করবে।

কোম্পানিটির ২০১৬-১৭ অর্থবছরে শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ১.০৩ টাকা। আর ২০১৭ সালের ৩০ জুন পুনঃমূল্যায়ন ছাড়া শেয়ার প্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৬.৪৮ টাকায়।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ফাইন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড, ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড ও এসবিএল ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ; ২৮ জুলাই ২০১৮

আগামীকাল শেষ হচ্ছে এমএল ডাইংয়ের আইপিও

নিজস্ব প্রতিবেদক: পুঁজিবাজার থেকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পেয়েছে বস্ত্র খাতের এমএল ডাইং লিমিটেড। কোম্পানিটির আইপিও আবেদন আগামীকাল (১৯ জুলাই) শেষ হবে। এর আগে ৮ জুলাই কোম্পানিটির আইপিও আবেদন শুরু হয়েছিল।

এর আগে পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৬৪৪তম কমিশন সভায় কোম্পানিটিকে আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়।

জানা গেছে, কোম্পানিটি পুঁজিবাজারে ২ কোটি সাধারণ শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। এ জন্য প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা।

কোম্পানিটি উত্তোলিত অর্থে যন্ত্রপাতি ও কলকব্জা ক্রয় ও স্থাপন করবে। এছাড়া বাদবাকি অর্থে আইপিও খরচ বাবদ ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত বছরের আর্থিক বিবরণী অনুযায়ী পুনঃমূল্যায়ন ছাড়া শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৩.২৩.৭১ টাকা ও শেয়ার প্রতি মুনাফা (ইপিএস) গড় হারে হয়েছে ২.৩৫ টাকা।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করছে এনবিএল ক্যাপিটাল অ্যান্ড ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড ও রূপালী ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ; ১৮ জুলাই ২০১৮

এমএল ডাইংয়ের আইপিও আবেদন শুরু রোববার

নিজস্ব প্রতিবেদক: সম্প্রতি প্রাথমিক গণপ্রস্থাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া কোম্পানি এমএল ডাইংয়ের আইপিও চাঁদা গ্রহণ শুরু হবে আগামী ৮ জুলাই (রোববার)। যা চলবে আগামী ১৯ জুলাই পর্যন্ত। কোম্পানি সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

এর আগে গত ১৫ মে এমএল ডাইংয়ের ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি সাধারণ শেয়ার প্রাথমিক গণ প্রস্তাব (আইপিও) এর মাধ্যমে ইস্যু প্রস্তাব অনুমোদন দেয় কমিশন।

আইপিও এর মাধ্যমে কোম্পানিটি ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। উত্তোলিত টাকা দিয়ে কোম্পানিটি যন্ত্রপাতি ও কলকব্জা ক্রয় এবং স্থাপনের পাশাপাশি আইপিওতে খরচ করবে।

৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে পুনর্মূল্যায়ন ছাড়া শেয়ার প্রতি নেট অ্যাসেট ভ্যালু হয়েছে ২৩ টাকা ৭১ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি ভারিত গড় হারে আয় হয়েছে ২ টাকা ৩৫ পয়সা।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটি কোনো সম্পদ পূণর্মূল্যায়ন করেনি। কোম্পানির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এনবিএল ক্যাপিটাল অ্যান্ড ইক্যুইটি ম্যানেজমেন্ট ও রূপালী ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ; ০৬ জুলাই ২০১৮

ভিএফএস থ্রেড ডাইংয়ের আইপিও আবেদনের শেষ দিন আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক: ভিএফএস থ্রেড ডাইং লিমিটেডকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) আ‌বেদন গত ২৪ জুন থেকে শুরু হয়েছে। বি‌নি‌য়োগকারীরা আজ ২ জুলাই পর্যন্ত এ কোম্পা‌নির আই‌পিও‌তে আ‌বেদন কর‌তে পার‌বেন। কোম্পা‌নি সূ‌ত্রে এ তথ্য জানা গে‌ছে।

এর আ‌গে বিএসইসির ৬৩৮তম কমিশন সভায় এ আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়।

কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি ২০ লাখ শেয়ার ইস্যু করে ২২ কোটি টাকা তুলবে। এ টাকা দিয়ে কোম্পানিটি প্ল্যান্ট ও মেশিনারিজ ক্রয়, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ ও আইপিও খরচে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৭ সমাপ্ত হিসাব বছরে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৯.৯০ টাকা। এ সময়ের কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২.০২ টাকা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে সিটিজেন সিকিউরিটিজ লিমিটেড ও ফার্স্ট সিকিউরিটিজ ক্যাপিটাল অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ; ০২ জুলাই ২০১৮