Category Archives: IPO Approval

সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজের আইপিও অনুমোদন

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহে অনুমোদন পেয়েছে সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজ। মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এর ৫৪৭তম সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়। বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও দায়িত্বপ্রাপ্ত মুখপাত্র সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কোম্পানিটি পুঁজিবাজারে ৩ কোটি শেয়ার ছেড়ে ৬০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। কোম্পানিটিকে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের সাথে ১০ টাকা প্রিমিয়ামসহ ২০ টাকা মূল্যে শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন দিয়েছে কমিশন। কোম্পানিটি পুঁজিবাজার থেকে টাকা সংগ্রহ করে মূলধনী বিনিয়োগ, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ, চলতি মূলধন অর্থায়ন ও আইপিওর কাজে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৪ সমাপ্ত বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৩৩ পয়সা। নেট এসেট ভ্যালু (এনএভি) হয়েছে ১৯ টাকা ৬০ পয়সা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড ও ইমপেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড

শেয়ারনিউজ২৪/ইউজে/১৫.০৫ঘ.

 

আইপিও অনুমোদন পেলো বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে টাকা উত্তেলনের অনুমোদন পেলো বাংলাদেশ ন্যাশনাল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫৪৩তম সভায় মঙ্গলবার কোম্পানির অনুমোদন দেয়া হয়। বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

বিএসইসি জানায়, কোম্পানিটি পুঁজিবাজারে ১ কোটি ৭৭ লাখ শেয়ার ছেড়ে ১৭ কোটি ৭০ লাখ টাকা সংগ্রহ করবে। কোম্পানিটিকে ১০ টাকা অভিহিত   মূল্যে শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন দিয়েছে কমিশন।

২০১৪ সালের ৩১ জুলাই শেষ হওয়া অর্থ বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৭ পয়সা। নেট এসেট ভ্যালু (এনএভি) হয়েছে ১৫ টাকা ৬৫ পয়সা । আইপিওর মাধ্যমে সংগ্রহ করা টাকা কোম্পানির এফডিআর, ট্রেজারি বন্ড এবং আইপিওর কাজে ব্যয় করা হবে।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ফিন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

অলিম্পিক এক্সেসরিজের আইপিও অনুমোদন

অলিম্পিক এক্সেসরিজ লিমিটেডকে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে টাকা উত্তোলনের অনুমোদন দিয়েছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। গতকাল বুধবার কমিশনের নিয়মিত সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়।
বিএসইসির এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে। এতে বলা হয়, আইপিওর মাধ্যমে অলিম্পিক এক্সেসরিজ লিমিটেড ১০ টাকা মূল্যের দুই কোটি সাধারণ শেয়ার ছেড়ে বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ১২০ কোটি টাকা উত্তোলন করতে পারবে। কোম্পানি এ টাকা দিয়ে নতুন কারখানা ভবন তৈরি, মেশিনারিজ ক্রয় ও আইপিও খাতে ব্যয় করবে।
গত ৩০ জুন শেষ হওয়া অর্থবছরের হিসাব অনুযায়ী প্রতিষ্ঠানটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৪৩ পয়সা।

বাংলাদেশ স্টিলের প্রসপেক্টাস অনুমোদন

প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলস লিমিটেডের প্রসপেক্টাস অনুমোদন করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে বিএসইসির ৫৩৩ তম কমিশন সভায় কোম্পানিটির আইপিও’র অনুমোদন দেয়া হয়।

আইপিও’র মাধ্যমে কোম্পানিটি শেয়ারবাজারে ১ কোটি ৭৫ লাখ শেয়ার ছেড়ে আইপিওর মাধ্যমে ৬১ কোটি ২৫ লাখ টাকা উত্তোলন করবে। এ জন্য ১০ টাকা ফেসভ্যালুর সঙ্গে ২৫ টাকা প্রিমিয়ামসহ প্রতিটি শেয়ারের নির্দেশক মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৫ টাকা।

আইপিওর মাধ্যমে অর্থ উত্তোলন করে কোম্পানিটি ঋণ পরিশোধ ও আইপিও খরচ খাতে ব্যয় করবে।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.০৬ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৫২.০৯ টাকা।

আইপিও ব্যবস্থাপনায় কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্বে রয়েছে অ্যালায়েন্স ফাইন্যান্স সার্ভিসেস লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ২৪/এস/১১.৪৫ঘ.

 

শাশা ডেনিমসে আবেদন শুরু ১৪ ডিসেম্বর

প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া শাশা ডেনিমস লিমিটেডে আবেদন গ্রহণ শুরু হবে ১৪ ডিসেম্বর, রোববার থেকে। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, কোম্পানিতে আবেদন গ্রহণ ১৪ ডিসেম্বর শুরু হয়ে শেষ হবে ১৮ ডিসেম্বর। তবে প্রবাসি বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ থাকবে ৩০ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

জানা গেছে, কোম্পানিটি শেয়ারবাজারে ৫ কোটি শেয়ার ছেড়ে ১৭৫ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। এ জন্য ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের সঙ্গে ২৫ টাকা প্রিমিয়ামসহ প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৫ টাকা। শেয়ারবাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করে কোম্পানিটি ব্যবসা সম্প্রসারণ, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ এবং আইপিও খাতে ব্যয় করবে।

বিএসইসির ৫২৯তম কমিশন সভায় কোম্পানিটির আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৭৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৫২.৯৫ টাকা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড এবং ইমপেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ২৪/এস/১৩.৪৫ঘ.

 

শাশা ডেনিমসের আইপিও অনুমোদন

প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে শেয়ারবাজার থেকে অর্থ উত্তোলনের অনুমোদন পেয়েছে শাশা ডেনিমস লিমিটেড। মঙ্গলবার সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫২৯তম কমিশন সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়।

বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মোঃ সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।

শাশা ডেনিমস লিমিটেড শেয়ারবাজারে ৫ কোটি শেয়ার ছেড়ে ১৭৫ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। এ জন্য ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের সঙ্গে ২৫ টাকা প্রিমিয়ামসহ প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৫ টাকা।

শেয়ারবাজার থেকে অর্থ উত্তোলন করে কোম্পানিটি ব্যবসা সম্প্রসারণ, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ এবং আইপিও খাতে ব্যয় করবে।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৭৩ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৫২.৯৫ টাকা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড এবং ইমপেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড।

 

সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইলের আইপিও অনুমোদন

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পেল সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইল লিমিটেড। বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা যায়।

মঙ্গলবার বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫২৮তম সভায় এ কোম্পানির আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়।

কোম্পানিটি শেয়ারবাজারে ৪ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ৪৫ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে কোম্পানিটি শেয়ার ইস্যু করবে বলে জানা গেছে।

চলতি বছরের ৩০ জুন শেষ হওয়া অর্থ বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী সিএ টেক্সটাইল শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৭৮ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৮.৩৮ টাকা ।

সি অ্যান্ড এ টেক্সটাইলে ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এএফসি ক্যাপিটাল ও ইম্পেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড।

খান ব্রাদার্সের আইপিও অনুমোদন

খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ BÛvwóªR লিমিটেডের আইপিও অনুমোদন করেছে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। কমিশনের ৫২১তম সভায় মঙ্গলবার কোম্পানিটির প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) এই অনুমোদন দেওয়া হয়। বিএসইসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আইপিওতে কোম্পানিটি ২ কোটি শেয়ার ইস্যু করবে। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যেই শেয়ার ছাড়বে কোম্পানিটি। এই শেয়ারের প্রিমিয়াম থাকছে না।

আইপিও’র মাধ্যমে কোম্পানিটি বাজার থেকে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। পুঁজিবাজার থেকে উত্তোলিত টাকা কোম্পানিটি মেশিনারিজ ক্রয়, দালান কোঠা নির্মাণ, ব্যাংক ঋণ পরিশোধ, চলতি মূলধন সংস্থান এবং আইপিওর খরচে খাতে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৩ সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত হিসাবসহ বিগত পাঁচ বছর অনুযায়ী কোম্পানির (ওয়েটেড এভারেজ) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) ছিল ৮৭ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য বা এনএভি ছিল ১৪ টাকা ৬৯ পয়সা।২০১৩ সালে কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় বা ইপিএস দাঁড়ায় ১ টাকা ৬৭ পয়সা।

এই কোম্পানির ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছে দুটি কোম্পানি। এরা এএফসি ক্যাপিটাল  লিমিটেড এবং weএমএসএল ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ লিমিটেড খান ব্রাদার্স গ্রুপের একটি প্রতিষ্ঠান। গ্রুপটি জাহাজ নির্মাণ, শিপিং লাইন্স, গার্মেন্টস, পলিমার বিজনেসে যুক্ত। খান ব্রাদার্স স্লিপওয়েজ অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কস দেশের সবচেয়ে বড় শিল্প ইয়ার্ড।

খান ব্রাদার্স পিপি ওভেন ব্যাগ BÛvwóªR লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তোফায়েল Kwei খান বলেন, বর্তমানে কোম্পানিটির বার্ষিক টার্নওভার প্রায় ১০০ কোটি টাকা। বছরে ৬০ লাখ পিস ব্যগ উৎপাদন করছে তার কোম্পানি। আইপিও’র মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থে এফআইবিসি ব্যাগ উৎপাদনের ইউনিট স্থাপন করা হবে

http://www.kbgbd.com/

ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের আইপিও অনুমোদন

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে মূলধন সংগ্রহের অনুমোদন পেয়েছে ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ড। মঙ্গলবার বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫১৯ তম সভায় এ কোম্পানির আইপিও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ফেস ভ্যালু ১০ টাকার সঙ্গে ২৫ টাকা প্রিমিয়ামসহ (অধিমূল্য) এ শেয়ারের নির্দেশক মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৫ টাকা।

কোম্পানিটি পুঁজিবাজারে ৪ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ১৫৭ কোটি ৫০ লাখ টাকা সংগ্রহ করবে।

সংগৃহীত অর্থে কোম্পানিটি ব্যাংক ঋণ পরিশোধ, অবকাঠামো উন্নয়ন এবং আইপিও খরচ বাবদ ব্যয় করবে।

২০১৩ সালের ৩০ জুন শেষ হওয়া অর্থ বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী এ কোম্পানির শেয়ারপ্রতি আয় ৩.৮৭ টাকা ও শেয়ারপ্রতি সম্পদ ৪০.২৭ টাকা।

ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে প্রাইম ফাইন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড, আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড ও ইসি সিকিউরিটিজ লিমিটেড।

দ্য রিপোর্ট

 

আরএসআরএমের আইপিও অনুমোদন

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে পুঁজিবাজার থেকে মূলধন সংগ্রহের অনুমতি পেয়েছে রতনপুর স্টিলস রি-রোলিং মিলস (আরএসআরএম)। মঙ্গলবার বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫১৬তম সভায় এ অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সংশ্লিস্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

আরএসআরএম পুঁজিবাজারে ২ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ১০০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। ফেস ভ্যালু ১০ টাকার সঙ্গে প্রতিটি শেয়ারে ৩০ টাকা প্রিমিয়াম (অধিমূল্য) নেবে আরএসআরএম। অর্থাৎ আইপিওর প্রতিটি শেয়ারের নির্দেশক মূল্য ৪০ টাকা।

২০১৩ সালের ৩০ জুন শেষ হওয়া অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী আরএসআরএমের শেয়ারপ্রতি আয় ৪.৫৮ টাকা ও শেয়ারপ্রতি সম্পদ হয়েছে ৫৩.৬৯ টাকা।

দ্য রিপোর্ট