Monthly Archives: March 2014

তুং হাইয়ের আইপিওতে আবেদন শুরু ১৮ মে

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া তুং হাই নিটিং অ্যান্ড ডায়িং লিমিটেডের আবেদন গ্রহণ শুরু হবে আগামী ১৮ মে রোববার থেকে। ইস্যুয়ার এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, কোম্পানির আইপিও আবেদন গ্রহণ ১৮ মে শুরু হয়ে শেষ হবে ২২ মে। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ থাকবে ৩১ মে পর্যন্ত।

কোম্পানিটি শেয়ারবাজারে ৩ কোটি ৫০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ৩৫ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। এ জন্য প্রতিটি শেয়ারের অভিহিত মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা।

আইপিওর মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থ দিয়ে কোম্পানিটি চলতি মূলধন, মেশিনারিজ ক্রয়, ব্যাংকের মেয়াদি ঋণ এবং আইপিও খাতে ব্যয় করবে।

৩১ ডিসেম্বর ২০১৩ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক হিসাব অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১৫ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৩.৭৩ টাকা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে এএফসি ক্যাপিটাল লিমিটেড এবং সহ-ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে ইমপেরিয়াল ক্যাপিটাল লিমিটেড।

এর আগে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫১০তম সভায় কোম্পানির আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়।

শেয়রনিউজ২৪

হা-ওয়েলের আইপিও লটারির ড্র আজ

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে টাকা সংগ্রহ শেষ আবেদনকারীদের মধ্যে শেয়ার বরাদ্দ দেয়ার জন্য হা-ওয়েল টেক্সটাইল (বিডি) লিমিটেডের লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হবে আজ রোববার। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, আজ কোম্পানিটির আইপিও লটারির ড্র সকাল সাড়ে ১০টায়, রাজধানীর রমনায় অবস্থিত ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন অব বাংলাদেশ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে।

কোম্পানিটির আইপিওতে মোট ৯০৬ কোটি ৮৯ লাখ ৮৫ হাজার টাকা জমা পড়েছে। যা সংগৃহীত টাকার ৪৫.৩৪ গুণ। এর মধ্যে সাধারণ খাতে ৫৬৫ কোটি ৭২ লাখ ৮০ হাজার টাকা, ক্ষতিগ্রস্ত খাতে ৬৪ কোটি ৯২ লাখ ৫৫ হাজার টাকা, মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে ২৪১ কোটি ৮৫ লাখ টাকা এবং প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ৩৪ কোটি ৩৯ লাখ ৮৫ হাজার টাকার আবেদন জমা পড়েছে।

এর আগে কোম্পানিটির আইপিওতে ১৭ থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আবেদন গ্রহণ করা হয়। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য সুযোগ ছিল ৪ মার্চ পর্যন্ত।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫০৪তম সভায় কোম্পানিটির আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়।

কোম্পানিটি শেয়ারবাজার থেকে ২০ কোটি টাকা সংগ্রহের জন্য ২ কোটি শেয়ার ছেড়েছে। এ জন্য প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা। ৫০০টি শেয়ারে মার্কেট লট।

কোম্পানিটির আইপিওর মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থ দিয়ে মেশিনারিজ ও জমি ক্রয়, ভূমি উন্নয়ন, নতুন ফ্যাক্টরি ভবন নির্মাণ, বর্তমান মেশিনারিজ মেরামত এবং আইপিও খাতে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৩ সমাপ্ত বছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৬৬ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২৮.৭৮ টাকা।

এ কোম্পানির ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্বে রয়েছে আলফা ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড এবং সিটিজেন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ২৪

Buying American Made Products Essay

These present prices to reduced prices on conduit, coach, and location train. Start learning before you appear if English isn’t your native-language. Some of buying american made products essay the biggest British banks buying american made products essay are Lloyds buying american made products essay Barclay is. They are generally not bad for five decades and can be expanded to ten. You don’t need a visa distinct. Tell whatever you realize below to us. In London, get an Oyster Card from a pipe (train) stop. Continue reading

হা-ওয়েলের আইপিও লটারির ড্র রোববার

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে টাকা সংগ্রহ শেষ হয়েছে হা-ওয়েল টেক্সটাইল (বিডি) লিমিটেডের। আবেদনকারীদের মধ্যে শেয়ার বরাদ্দ দেয়ার জন্য লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হবে আগামী ২৩ মার্চ, রোববার। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, ওইদিন আইপিও লটারির ড্র সকাল সাড়ে ১০টায়, রাজধানীর রমনায় অবস্থিত ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন অব বাংলাদেশ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে।

কোম্পানিটির আইপিওতে মোট ৮৭৯ কোটি ১৮ লাখ ৩৪ হাজার ৭৯০ টাকা জমা পড়েছে। যা সংগৃহীত টাকার ৪৩.৯৫ গুণ। এর মধ্যে সাধারণ খাতে ৫৬৫ কোটি ৭২ লাখ ৬০ হাজার টাকা, ক্ষতিগ্রস্ত খাতে ৬৪ কোটি ৯২ লাখ ৭৫ হাজার টাকা, মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতে ২৪১ কোটি ৮৫ লাখ টাকা এবং প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ৬ কোটি ৬৭ লাখ ৯৯ হাজার ৭৯০ টাকার আবেদন জমা পড়েছে।

এর আগে কোম্পানিটির আইপিওতে ১৭ থেকে ২৩ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত আবেদন গ্রহণ করা হয়। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য সুযোগ ছিল ৪ মার্চ পর্যন্ত।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫০৪তম সভায় কোম্পানিটির আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়।

কোম্পানিটি শেয়ারবাজার থেকে ২০ কোটি টাকা সংগ্রহের জন্য ২ কোটি শেয়ার ছেড়েছে। এ জন্য প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা। ৫০০টি শেয়ারে মার্কেট লট।

কোম্পানিটির আইপিওর মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থ দিয়ে মেশিনারিজ ও জমি ক্রয়, ভূমি উন্নয়ন, নতুন ফ্যাক্টরি ভবন নির্মাণ, বর্তমান মেশিনারিজ মেরামত এবং আইপিও খাতে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৩ সমাপ্ত বছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩.৬৬ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২৮.৭৮ টাকা।

এ কোম্পানির ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্বে রয়েছে আলফা ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড এবং সিটিজেন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ২৪

আরামিট সিমেন্টের সাবস্ক্রিপশন শুরু ২৩ মার্চ

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সিমেন্ট খাতের আরামিট সিমেন্ট লিমিটেডের রাইট শেয়ারের সাবস্ক্রিপশন শুরু হবে আগামী ২৩ মার্চ, রোববার থেকে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, কোম্পানিটির রাইট শেয়ারের সাবস্ক্রিপশন ২৩ মার্চ শুরু হয়ে শেষ হবে ১৭ এপ্রিল। এ সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট ছিলো গত ৯ জানুয়ারি।

জানা গেছে, কোম্পানিটি শেয়ারবাজারে ১আর:১ অনুপাতে (১টি সাধারণ শেয়ারের বিপরীতে ১টি রাইট শেয়ার) ১ কোটি ৬৯ লাখ ৪০ হাজার শেয়ার ছেড়ে ২৫ কোটি ৪১ লাখ টাকা উত্তোলন করবে। এ জন্য প্রতিটি শেয়ারের মূল্য ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের সঙ্গে ৫ টাকা প্রিমিয়ামসহ ১৫ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।

রাইটের মাধ্যমে শেয়ারবাজার থেকে টাকা উত্তোলন করে তার লোকাল স্পেয়ার্স ও একসেসরিজ প্রকিউরমেন্ট, সিভিল ওয়ার্ক, ইরেকশন ও কমিশনিং এবং ব্যাংক হতে গৃহীত টার্ম লোন ও অন্যান্য দায় পরিশোধে ব্যবহার করবে।

রাইট শেয়ার ইস্যুর ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব পালন করছে এএএ কনসালটেন্ট অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল এডভাইজার লিমিটেড।

এর আগে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫০২ তম সভায় কোম্পানিটির রাইট শেয়ার অনুমোদন করা হয়।

শেয়ারনিউজ২৪

এমারেল্ড অয়েলের লেনদেন শুরু বুধবার

প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) প্রক্রিয়া শেষে এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের শেয়ার লেনদেন আগামী ১৯ মার্চ, বুধবার দেশের উভয় শেয়ারবাজারে শুরু হবে। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

এর আগে আবেদনকারীদের মধ্যে শেয়ার বরাদ্ধ দেয়ার জন্য কোম্পানিটির লটারির ড্র ৬ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয়।

এরও আগে গত ৬ থেকে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত কোম্পানিটির আইপিওতে আবেদন জমা নেয়া হয়। আর প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ ছিল ২১ জানুয়ারি পর্যন্ত।

আইপিওর মাধ্যমে এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড শেয়ারবাজারে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা উত্তোলন করে। কোম্পানির প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা এবং ৫০০ শেয়ারে মার্কেট লট।

কোম্পানিটি মূলধন বাড়াতে ৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা, মেয়াদি ঋণ পরিশোধে ১২ কোটি টাকা এবং ১ কোট ৫০ লাখ টাকা আইপিও খাতে ব্যয় করতে এ অর্থ উত্তোলন করে।

৩০ জুন ২০১৩ আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, এমারেল্ড অয়েলের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৮৫ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৪.০৬ টাকা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্বে রয়েছে অ্যালায়েন্স ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড।

গত ১৯ নভেম্বর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজের আইপিও অনুমোদন করে।

শেয়ারনিউজ২৪

তালিকাভুক্তির অনুমোদন পেল এমারাল্ড অয়েল

শেয়ারবাজারে অর্থ সংগ্রহের পর দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) তালিকাভুক্তির অনুমতি পেয়েছে এমারাল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ। গত সোমবার ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কোম্পানিটির লটারিতে পাওয়া শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে জমার পর লেনদেনের দিন ধার্য করবে ডিএসইর ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ।
গত ১৯ নভেম্বর এমারাল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন দেয় শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। এরপর কোম্পানিটির আইপিও আবেদন শুরু হয় গত ৬ জানুয়ারি। আবেদন চলে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত। তবে অনাবাসী বাংলাদেশীরা ২১ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদনের সুযোগ পান।
ধানের তুষ থেকে ভোজ্যতেল উৎপাদন করে এমারাল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ। কোম্পানিটি ২০০৮ সালে স্থাপিত হলে বাণিজ্যিক উৎপাদনে আসে ২০১১ সালের জুলাইয়ে। উৎপাদনে আসার পর থেকে কোম্পানিটি চলতি মূলধন সংকটে রয়েছে। প্রতিষ্ঠার পর এখন পর্যন্ত কোম্পানিটি কোনো লভ্যাংশও দিতে পারেনি। এমন কোম্পানিকে শেয়ারবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহের অনুমতি দেয় নিয়ন্ত্রণকারী সংস্থা।
কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা সংগ্রহ করে। উত্তোলিত অর্থ দিয়ে কোম্পানিটি মেয়াদি ঋণ পরিশোধ, চলতি মূলধন এবং আইপিও খরচ বাবদ ব্যয় করবে। ২০১৩ সালের ৩০ জুনের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী, এমারাল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারপ্রতি আয় ২ টাকা ৮৫ পয়সা ও শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য ১৮ টাকা ৬ পয়সা।
প্রসঙ্গত, শেয়ারবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহের উদ্দেশ্যে গত বছরের ২৭ জানুয়ারি বিএসইসিতে আবেদন জানায় কোম্পানিটি। আবেদনের ১০ মাসের মধ্যে আইপিওর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। কোম্পানিটি স্পন্দন ব্র্যান্ড নামে ভোজ্যতেল উৎপাদন ও বিপণন করে। তবে এর চাহিদা কম থাকায় উৎপাদিত পণ্যের অধিকাংশই এসিআই লিমিটেডে সরবরাহ করা হয়। এসিআই এ পণ্য নিজস্ব ব্র্যান্ডের নামে বাজারজাত করে। এতে একধরনের ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে এমারাল্ড ইন্ডাস্ট্রিজ। এছাড়া প্রতিষ্ঠার পর থেকেই কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নগদ পরিচালন প্রবাহ ঋণাত্মক থাকায় বড় ধরনের ঝুঁকি রয়েছে।
ধানের তুষ থেকে ভোজ্যতেল উৎপাদনের লক্ষ্যে ২০০৮ সালের ১৭ জুলাই এমারাল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ স্থাপিত হয়। বাণিজ্যিক উৎপাদনে আসার সময় কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন ছিল ৫০ লাখ টাকা। এ সময়ে নেট লোকসান ছিল ২ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। ২০১২ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারিতে ১৭ কোটি ৫০ লাখ টাকায় উন্নীত করা হয়। একই বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত কোম্পানিটির ব্যাংকঋণের পরিমাণ হচ্ছে ৬৮ কোটি টাকা। এর মধ্যে ৫৭ কোটি হচ্ছে দীর্ঘমেয়াদি ঋণ।
বণিক বার্তা

মতিন স্পিনিং রিফান্ড ওয়ারেন্ট ও অ্যালোটমেন্ট লেটার বিতরণ –

প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা মতিন স্পিনিং মিলস লিমিটেডে আবেদনকারীদের রিফান্ড ওয়ারেন্ট এবং অ্যালোটমেন্ট লেটার বিতরণ করা হয়েছে। চট্রগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, রিফান্ড ওয়ারেন্ট এবং অ্যালোটমেন্ট লেটারধারীদের মধ্যে ৬ লাখ ৫৫ হাজার ৪৯ আবেদনকারীকে অনলাইনের মাধ্যমে ৩২টি ব্যাংকে, ৪ লাখ ৪১ হাজার ২২৮ আবেদনকারীকে হাতে হাতে এবং ২৬ হাজার ৭৬৯ জন আবেদনকারীকে কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে প্রেরণ করা হয়েছে।

কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে গত ৬ মার্চ স্পিড এক্সপ্রেস, ভিশন এক্সপ্রেস, বাংলা কুরিয়ার সার্ভিস, মধুবন কুরিয়ার সার্ভিস, বসুমতি এক্সপ্রেস, ফেইত কুরিয়ার সার্ভিস, সময় এক্সপ্রেস, একুশে এক্সপ্রেস, ডেল্টা কুরিয়ার সার্ভিস, কন্টিনেন্টাল এক্সপ্রেস, এক্সট্রা কেয়ার কুরিয়ার সার্ভিস, ওয়ার্ল্ড রানার এক্সপ্রেস, আর.এম.কুরিয়ার সার্ভিস এবং টপ এক্সপ্রেস এর মাধ্যমে প্রেরণ করা হয়েছে।

শেয়ারনিউজ২৪

ফার কেমিক্যালের আইপিওতে আবেদন শুরু

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া ফার কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডে আবেদন গ্রহণ আজ ১০ মার্চ, সোমবার থেকে শুরু হয়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, কোম্পানিটির আইপিও আবেদন গ্রহণ আজ শুরু হয়ে শেষ হবে ১৬ মার্চ। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ থাকবে ২৫ মার্চ পর্যন্ত।

ফার কেমিক্যাল শেয়ারবাজারে ১ কোটি ২০ লাখ শেয়ার ছেড়ে ১২ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। এ জন্য কোম্পানিটির প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা এবং মার্কেট লট ৫০০ শেয়ারে নির্ধারণ করা হয়েছে।

আইপিওর মাধ্যমে সংগৃহীত অর্থ দিয়ে কোম্পানিটি ক্যাপিটাল মেশিনারি ক্রয় এবং বর্তমান মূলধন বাড়ানো কাজে ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৩ সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫.০১ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৫.৫৫ টাকা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্ব পালন করছে ফার্স্ট সিকিউরিটিজ সার্ভিসেস লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ২৪