Monthly Archives: January 2014

ডিএসইতে লেনদেনের অনুমোদন পেলো মোজাফফর স্পিনিং

বহুল আলোচিত মোজাফফর হোসাইন স্পিনিং মিলস দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেনের অনুমোদন পেয়েছে। মঙ্গলবার অনুষ্ঠিত ডিএসইর ৭৫৯তম বোর্ড সভায় এ অনুমোদন দেয়া হয়। ডিএসইর জনসংযোগ কর্মকর্তা ইশতিয়াক আহমেদ সোহাগ এ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর ফলে শেয়ারবাজারে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) আসা মোজাফফর হোসাইন স্পিনিং লিমিটেড খুব শিগগিরই ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন শুরু করবে। ডিএসইর আনুষ্ঠানিকতা শেষে আগামী সপ্তাহে কোম্পানিটি সেকেন্ডারি মার্কেটে লেনদেন করবে বলে আভাস পাওয়া গেছে।

এর আগে কোম্পানিটি কোনো প্রিমিয়াম ছাড়া ১০ টাকা ফেস ভ্যালুতে ২ কোটি ৭৫ লাখ শেয়ারের বিপরীতে শেয়ারবাজার থেকে আইপিওর মাধ্যমে ২৭ কোটি ৭৫ লাখ টাকা সংগ্রহ করে। সংগৃহীত টাকা থেকে কোম্পানিটি ২৬ কোটি ১৪ লাখ ৯৫ হাজার টাকা ব্যাংকঋণ এবং বাকি ১ কোটি ৩৫ লাখ ৫ হাজার টাকা আইপিও খাতে ব্যয় করবে বলে জানা গেছে। এ কোম্পানির মার্কেট লট ৫০০ শেয়ারে।

মোজাফফর হোসাইন স্পিনিং মিলস লিমিটেডের অনুমোদিত মূলধন ১০০ কোটি টাকা। আইপিও পূর্ব পরিশোধিত মূলধন ৩৪ কোটি ৯৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা। আইপিওর পর পরিশোধিত মূলধন দাঁড়াবে ৬২ কোটি ৬৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

 

 
শেয়ারনিউজ২৪

এএফসি এ্যাগ্রো বায়োটেকের লটারি শনিবার

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের মাধ্যমে টাকা সংগ্রহ শেষে আগামী ১১ই জানুয়ারি, শনিবার এএফসি এ্যাগ্রো বায়োটেকের লটারি অনুষ্ঠিত হবে। বিশ্বস্ত সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, ওই দিন সকাল ১০টায়, রাজধানীর রমনাতে অবস্থিত ইঞ্জিনিয়ার্স ইনষ্টিটিউটে এ লটারির ড্র অনুষ্ঠিত হবে।

এএফসি এ্যাগ্রোতে ৬০ গুণ আবেদন জমা

এএফসি এ্যাগ্রো বায়োটেক লিমিটেডের প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) ৬০ গুণ টাকা জমা পড়েছে। সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, এএফসি এ্যাগ্রো বায়োটেকে টাকার অংকে ১২ কোটি টাকার বিপরীতে জমা পড়েছে ৭১৯ কোটি ২ লাখ ৬০ হাজার টাকা। যা মোট টাকার ৫৯.৯২ গুণ।

আরো জানা যায়, প্রাথমিক হিসাবে অনুযায়ী কোম্পানিটির আইপিওতে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে মোট ৪৯২ কোটি ৬৬ লাখ ৬০ হাজার টাকা, ক্ষতিগ্রস্থ ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের কাছে থেকে ৫৯ কোটি ৩৪ লাখ ৫ হাজার টাকার, প্রবাসি বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ২৫ কোটি ২০ লাখ ৯৫ হাজার টাকা এবং মিউচ্যুয়াল ফান্ড খাতের বিনিয়োগকারীদের কাছ থেকে ১৪১ কোটি ৮১ লাক টাকার আবেদন জমা পড়েছে।

কোম্পানিটির আইপিওতে ১ কোটি ২০ লাখ শেয়ারের মধ্যে ক্ষতিগ্রস্থ বিনিয়োগকারীদের ২০ শতাংশ, মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও প্রবাসি বিনিয়োগকারীদের জন্য ২০ শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের ৬০ শতাংশ শেয়ার বরাদ্দ দেয়া হবে।

গত ৮ ডিসেম্বর থেকে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ কোম্পানির আইপিওতে আবেদন জমা নেয়া হয়। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ ছিলো ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

এএফসি এ্যাগ্রো বায়োটেক ১২ কোটি টাকা উত্তোলনের লক্ষ্যে শেয়ারবাজারে ১ কোটি ২০ লাখ শেয়ার ছাড়ে। এ জন্য প্রতিটি শেয়ারের অভিহিত মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা। কোম্পানির ৫০০টি শেয়ারে লট নির্ধারণ করা হয়েছে।

আইপিওর মাধ্যমে উত্তোলিত অর্থ দিয়ে প্রতিষ্ঠানটি ব্যবসায়ীক মূলধন হিসাবে ১০ কোটি ৯০ লাখ ৪১ হাজার ৫০০ টাকা এবং আইপিও খাতে ১ কোটি ৯ লাখ ৫৮ হাজার ৫০০ টাকা ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৩ অর্ধবার্ষিক আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী এ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.০১ টাকা এবং শেয়ার প্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১১.১০ টাকা।

এ প্রতিষ্ঠানের ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্ব পালন করছে ইমপেরিয়্যাল ক্যাপিটাল লিমিটেড এবং সিগমা ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

শেয়ারনিউজ২৪

এমারেল্ড অয়েলে আইপিও আবেদন শুরু

শেয়ারবাজারে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের টাকা সংগ্রহ আজ ৬ জানুয়ারি, সোমবার থেকে শুরু হয়েছে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।জানা যায়, প্রতিষ্ঠানটির আইপিওতে টাকা গ্রহণ আজ ৬ জানুয়ারি শুরু হয়েছে এবং শেষ হবে ১২ জানুয়ারি। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ থাকবে ২১ জানুয়ারি পর্যন্ত।আইপিওর মাধ্যমে এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড শেয়ারবাজারে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। এ জন্য কোম্পানির প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা।

কোম্পানিটি সংগৃহীত টাকায় মূলধন বাড়াতে ৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা, মেয়াদি ঋণ পরিশোধে ১২ কোটি টাকা এবং ১ কোট ৫০ লাখ টাকা আইপিও খাতে ব্যয় ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৩ আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী এমারেল্ড অয়েলের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৮৫ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৪.০৬ টাকা।

এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্বে রয়েছে অ্যালায়েন্স ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড।

এর আগে গত ১৯ নভেম্বর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজের আইপিও অনুমোদন করে।

শেয়ারনিউজ২৪

এমারেল্ড অয়েল প্রবাসিদের আবেদন জমা নেয়া হবে এজিবি কলোনীতে

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) প্রবাসি বিনিয়োগকারীদের (এনআরবি) আবেদন রাজধানীর এজিবি কলোনীতে জমা নেমে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ। সিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, আগামী আগামী ৬ জানুয়ারি থেকে ৯ জানুয়ারি এবং ১২ জানুয়ারি সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত এজিবি কলোনির কমিউনিটি সেন্টারে (মতিঝিল আইডিয়াল স্কুলের বিপরীতে) প্রবাসি বিনিয়োগকারীদের আইপিও আবেদন জমা নেয়া হবে। তবে প্রবাসি বিনিয়োগকারীরা এ কোম্পানির আইপিওতে ২১ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন ফর্ম জমা নেয়া হবে।

স্থানীয় বিনিয়োগকারীরা এ কোম্পানির আইপিওতে ৬ থেকে ১২ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন করতে পারবে।

শেয়ারনিউজ২৪

এমারেল্ড অয়েলে আইপিও আবেদন শুরু ৬ জানুয়ারি

শেয়ারবাজারে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন পাওয়া এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের টাকা সংগ্রহ শুরু হবে আগামী ৬ জানুয়ারি থেকে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, প্রতিষ্ঠানটির আইপিওতে টাকা গ্রহণ আগামী ৬ জানুয়ারি শুরু হবে এবং শেষ হবে ১২ জানুয়ারি। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এ সুযোগ থাকবে ২১ জানুয়ারি পর্যন্ত।

আইপিওর মাধ্যমে এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড শেয়ারবাজারে ২ কোটি শেয়ার ছেড়ে ২০ কোটি টাকা সংগ্রহ করবে। এ জন্য কোম্পানির প্রতিটি শেয়ারের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ টাকা।

কোম্পানিটি সংগৃহীত টাকায় মূলধন বাড়াতে ৬ কোটি ৫০ লাখ টাকা, মেয়াদি ঋণ পরিশোধে ১২ কোটি টাকা এবং ১ কোট ৫০ লাখ টাকা আইপিও খাতে ব্যয় ব্যয় করবে।

৩০ জুন ২০১৩ আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী এমারেল্ড অয়েলের শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২.৮৫ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৪.০৬ টাকা।

এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের ইস্যু ব্যবস্থাপকের দায়িত্বে রয়েছে অ্যালায়েন্স ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেড।

এর আগে গত ১৯ নভেম্বর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) এমারেল্ড অয়েল ইন্ডাস্ট্রিজের আইপিও অনুমোদন করে।

শেয়ারনিউজ২৪